চিত্রদেশ

এক নারীর জন্য ৭০ সেনা

চিত্রদেশ ডেস্ক:
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জাপানের রাজকীয় সেনাবাহিনী ৭০ সেনার জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার একজন ‘বিনোদন নারী’ সরবরাহ করতে বলেছিল। যুদ্ধকালীন সরকারের নথির বরাত দিয়ে জাপানের বার্তা সংস্থা কিওডো শুক্রবার এ তথ্য জানিয়েছে।

‘বিনোদন নারী’ বা কমফোর্ট ওমেন বলতে সেসব নারীদের বোঝানো হয় যাদেরকে দেহব্যবসার জন্য জাপানি সেনাবাহিনীর পতিতালয়ে থাকতে বাধ্য করা হতো। এসব নারীর অধিকাংশই ছিলো দক্ষিণ কোরিয়ার।

চীনের শ্যানডং প্রদেশে কুইংডোতে তৎকালীন কনস্যুল জেনারেল দপ্তরে পাঠানো এক চিঠিতে টোকিওর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, সেনাবাহিনী ৭০ সেনার জন্য একজন নারী চেয়েছে।

শ্যানডং প্রদেশেরই জিনানের কনস্যুল জেনারেল আরেকটি চিঠিতে জানিয়েছেন, যেহেতু জাপানি বাহিনী এগিয়ে যাচ্ছে তাই তাদের জন্য অন্তত ৫০০ ‘বিনোদন নারী’ এখানে পাঠাতে হবে।

১৯৯৩ সালে তৎতকালীন মন্ত্রিসভার মুখ্যসচিব ইয়োহি কোনো জানিয়েছিলেন, পতিতালয়ে নারীদের কাজ করতে বাধ্য করার পেছনে জাপান সরকারেরে সংশ্লিষ্টতা ছিল।

কোরিয়ান কাউন্সিলের ওমেন ড্রাফটেড ফর মিলিটারি সেক্সুয়াল সেলেভারি বাই জাপান বিভাগের প্রধান ইয়ুন মি-হায়াং বলেন, ‘সর্বশেষ নথিতে আমরা পতিতালয়গুলো কিভাবে চালানো হতো সেসব তথ্য পাচ্ছি। তথাকথিত বিনোদন নারীদের জন্য কতজন সেনা দেওয়া হতো সে তথ্য পাচ্ছি’।

চিত্রদেশ//এস//

আরও

Leave a Reply

Back to top button