আন্তর্জাতিকপ্রধান সংবাদ

ধর্মীয় সমাবেশের কারণে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ: ডব্লিউএইচও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মতে ধর্মীয় সমাবেশের কারণেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। সংস্থাটি বলছে, বিশ্বের এমন বহু দেশ আছে যারা করোনা সংক্রমণ প্রায় নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছিল। কিন্তু বিভিন্ন ধর্মীয় সমাবেশের জন্য সেসব দেশে আবার তা বাড়তে শুরু করেছে।

উদাহরণ হিসেবে দক্ষিণ কোরিয়ার কথা উল্লেখ করেছে ডব্লিউএইচও। সেদেশে একটা সময় নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছিল করোনার সংক্রমণ। কিন্তু এর মধ্যে কিছু ধর্মীয় সমাবেশের পর সিউলে নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রবনতা দেখা গিয়েছে।

সোমবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইমার্জিং ডিজিজ বিভাগের প্রধান মারিয়া ভন কেরখোভ এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, ‘বিশ্বের অনেক দেশই মানুষের থেকে মানুষের দেহে সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে এনে ফেলেছে। কোনও কোনও দেশে সংক্রমণের সংখ্যাটা একেবারেই কম। কিন্তু এই দেশগুলিতে এখন নতুন করে সংক্রমণ শুরু হচ্ছে।’

কেরখোভ আরও বলেছেন, ‘আমাদের সেই সবকিছু করতে হবে, যার মাধ্যমে করোনা প্রতিরোধ করা যায়। কোনওভাবেই গাফিলতি করা চলবে না।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই বক্তব্য এমন এক সময় প্রকাশ্যে এলো যখন ধীরে ধীরে বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে শুরু করেছে বিভিন্ন দেশ।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভারতের পুরি শহরে রথযাত্রার মতো বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া সোমবার সীমিত আকারে হজ অনুষ্ঠানের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরবও। যদিও এবারের হজে কোনও বিদেশিকে অংশগ্রহণের সুযোগ দিচ্ছে না সৌদি কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, ডব্লিউএইচও প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসুস ফের বিশ্বনেতাদের অনুরোধ করেছেন, করোনা নিয়ে তারা যেন রাজনীতি না করেন।

তিনি বলেন, ‘গতি বাড়াচ্ছে করোনা সংক্রমণ। বিশ্ব এখন আরও বিপজ্জনক পরিস্থিতিতে। এই পরিস্থিতিতে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করা ছাড়া আমাদের আর কোনও উপায় নেই।’

প্রসঙ্গত, বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারি ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় বারবার চীনকে অভিযুক্ত করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ নিয়ে দু দেশের বিরোধ চরেমে পৌঁছেছে।

শুধু তাই নয়, করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থতার অভিযোগে লাগাতার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিরুদ্ধে-ও ক্রমাগত ক্ষোভ প্রকাশ করে চলেছেন ট্রাম্প। ইতিমধ্যে সংস্থাটির আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এমনকি জাতিসংঘের এই অঙ্গ সংগঠন থেকে বেরিয়ে আসারও হুমকি দিয়েছেন ট্রাম্প।

হয়তো বা এ কারণেই বারবার বিশ্বনেতাদের প্রতি ঐক্যবদ্ধভাবে করোনা মোকাবেলার ডাক দিয়ে চলেছেন ডব্লিউিএইচও প্রধান। এর আগে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তেনিও গুতারেসও একই আহ্বান জানিয়েছিলেন। যদিও এতে তেমন কাজ হয়নি।

চিত্রদেশ //এল//

আরও

Leave a Reply

Back to top button