কর্পোরেট সংবাদ

থাইল্যান্ডে ভ্রমণে ইউএস-বাংলার আকর্ষণীয় প্যাকেজ ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার:

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বাংলাদেশী পর্যটকদের থাইল্যান্ডের বিভিন্ন আকর্ষণীয় গন্তব্যে নানাবিধ সুবিধা দিয়ে ভ্রমণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। সারাবিশ্বের পর্যটকদের আকর্ষণ বর্ণিল ব্যাংকক, নান্দনিক সৌন্দর্যে পরিপূর্ণ সৈকত পাতায়া এবং পাহাড়, সমতল আর সমুদ্রের অপরূপ সৌন্দর্য ফুকেট আর করবীতে ভ্রমণ প্যাকেজ দিচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

থাইল্যান্ডের বিভিন্ন গন্তব্যে বিশেষ করে ব্যাংককে দুই রাত তিন দিনের জন্য নূন্যতম প্যাকেজ ২২ হাজার ৯৯০ টাকা, ব্যাংকক ও পাতায়ায় চার রাত পাঁচ দিনের জন্য নূন্যতম ২৯ হাজার ৯৯০ টাকা, ব্যাংকক ও ফুকেটে চার রাত পাঁচ দিনের জন্য নূন্যতম ৪১ হাজার ৯৯০ টাকা এবং ব্যাংকক ও করবীতে চার রাত পাঁচ দিনের জন্য নূন্যতম ৪২ হাজার ৯৯০ টাকা প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে।

প্যাকেজে সকল ধরনের ট্যাক্সসহ বিমানভাড়া ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকা, ব্যাংকক-ফুকেট-ব্যাংকক এবং ব্যাংকক-করবী-ব্যাংকক, তিন তারকা বিশিষ্ট হোটেলে থাকার ব্যবস্থা, সকালের নাস্তা, হোটেল-এয়ারপোর্ট-হোটেল ট্রান্সফারসহ নানাবিধ সুবিধা রয়েছে।

থাইল্যান্ডের বিভিন্ন গন্তব্যে ইউ-বাংলা’র ভ্রমণ প্যাকেজগুলো কমপক্ষে দু’জনের জন্য প্রযোজ্য। ভ্রমণ পিপাসুদের সুবিধার্থে বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ছয় মাসের ইএমআই সুবিধাও দিচ্ছে।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে- ব্র্যাক ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, মেঘনা ব্যাংক, মিডল্যান্ড ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক, এনআরবি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, ব্যাংক এশিয়া, সাউথইস্ট ব্যাংক, ন্যাশনাল ক্রেডিট এন্ড কমার্স ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স প্রমুখ।

প্রতিষ্ঠানভেদে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ থাকছে নির্দিষ্ট আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে ইস্যুকৃত কার্ডের ওপর। শীতকালীন ভ্রমণ প্যাকেজগুলো শুধুমাত্র ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের সেলস অফিস থেকে সংগ্রহ করা যাবে।

সপ্তাহে চারদিন (সোম, বুধ, শুক্র ও শনিবার) সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে ব্যাংককের উদ্দেশ্যে ঢাকা থেকে যাত্রা শুরু করে ইউএস-বাংলা এবং ব্যাংককের স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৫৫ মিনিটে ব্যাংকক থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ফ্লাইট ছেড়ে আসে।

সুন্দর ফ্লাইট শিডিউলের জন্য দিন দিন ঢাকা-ব্যাংকক রুট জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ৮টি বিজনেস ক্লাস ও ১৫৬টি ইকোনমি ক্লাসসহ মোট ১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে ঢাকা-ব্যাংকক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে।

বর্তমানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে থাইল্যান্ডের বিভিন্ন গন্তব্য ছাড়াও গুয়াংজু, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, চেন্নাই, কলকাতায় আকর্ষণীয় ভ্রমণ প্যাকেজ সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

চিত্রদেশ//এস//

আরও

Leave a Reply

Back to top button