খেলাধুলা

কোয়ারেন্টাইনে কিভাবে সময় কাটাচ্ছেন রোনালদো!

স্পোর্টস ডেস্ক:

ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে খেলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সেখানেই তার সতীর্থ ড্যানিয়েল রুগানি আক্রান্ত হন করোনাভাইরাসে। সতীর্থ করোনা আক্রান্ত আর তার সঙ্গে ইতালিতে ড্রেসিং রুম ভাগাভাগি করেছেন রোনালদোরা। সুতরাং, করোনাভাইরাস তো ছড়িয়ে পড়তে পারে রুগানির সতীর্থ রোনালদোদের মাঝেও।

এ শঙ্কাতেই গত ১২ মার্চ থেকে নিজের বাড়ি, পর্তুগালের দ্বীপ শহর মাদেইরায় কোয়ারেন্টাইনে থাকতে শুরু করেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এরই মধ্যে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষ করে ফেলেছেন। শুধু তাই নয়, কোয়ারেন্টাইন শেষে ইতালির তিনটি হাসপাতালকে ৩৫ শয্যার আইসিইউ এবং ভেন্টিলেশন সুবিধাসহ করোনা চিকিৎসার অত্যাধুনিক উপাদান দেয়ার ঘোষণা দেন রোনালদো এবং তার বন্ধু ও এজেন্ট হোর্হে মেন্ডেজ।

তবে, ইউরোপের আনাচে-কানাচে যেভাবে করোনা ছড়িয়েছে, তাতে করে সেলফ আইসোলেশন কিংবা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকাছাড়া কোনো উপায়ও নেই। সে কারণেই কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোও।

মাঠে খেলা নেই, ক্লাবের অনুশীলন ক্যাম্প নেই। কিভাবে লম্বা সময়টা কোয়ারেন্টাইনে বসে কাটাচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো? সেটা দেখাতেই নিজের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডলে রোনালদো হোম কোয়ারেন্টাইনে সন্তানদের সঙ্গে কোয়ালিটি সময় কাটানোর একটি ছবি পোস্ট করেছেন। জানিয়ে দিলেন, তার সময়টা খারাপ কাটছে না।

সোমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় গৃহবন্দি অবস্থায় তিন সন্তানের সঙ্গে খোশমেজাজে একটি ছবি পোস্ট করেন জুভেন্তাসের এই পর্তুগিজ তারকা। সেখানে দেখা যাচ্ছে একটি সাদা সোফার ওপর বসে আছেন ৩৫ বছর বয়সী রোনালদো। সঙ্গে রয়েছেন তার জমজ দুই কন্যা মাতেও এবং ইভা। এছাড়া ছোট সন্তান আলানাও রয়েছে সেখানে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রোনালদোর সঙ্গী হিসেবে রয়েছেন তার মা ডলরেস, বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগুয়েজ এবং বড় সন্তান রোনালদো জুনিয়র।

টুইটরে লেখা বার্তায় সমর্থক এবং পৃথিবীর মানুষের উদ্দেশ্যে কিছু বার্তা লেখেন সিআরসেভেন। রোনালদো টুইটারে লেখেন, ‘কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে চলেছে গোটা বিশ্ব; কিন্তু আমাদের পরিবার, স্বাস্থ্য, প্রিয়জনের প্রতি আমাদের আরো বেশি দায়িত্বশীল থাকতে হবে। তাই বাড়িতে থাকুন এবং পৃথিবীজুড়ে যে সকল চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরা মানুষের সেবার কাজে নিয়োজিত তাদের সহযোগীতা করুন।’

 

চিত্রদেশ//এস//

 

আরও

Leave a Reply

Back to top button