অর্থ-বাণিজ্যব্যাংক

৯৮তম প্রাইজ বন্ডের ড্র অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার:
১০০ টাকা মূল্যমানের প্রাইজ বন্ডের ৯৮তম ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার অনুষ্ঠিত এ ড্রয়ে পুরস্কার বিজয়ী পাবেন ছয় লাখ টাকা এবং দ্বিতীয় পুরস্কার বিজয়ী পাবেন ৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা। প্রথম পুরস্কার বিজয়ীর নম্বর ০৬১১৫৬৩ এবং দ্বিতীয় পুরস্কার বিজয়ীর নম্বর ০৬৪৮৩৫৫।

রোববার ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন ও আইসিটি) এ কে এম মাসুদুজ্জামানের সভাপতিত্বে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের অফিসে এ ড্র অনুষ্ঠিত হয়।

ড্রয়ে এক লাখ টাকা করে দুটি তৃতীয় পুরস্কারের নম্বর ০১০৩৬১০ ও ০২৭২৭৫৬। আর ৫০ হাজার টাকা করে দুটি চতুর্থ পুরস্কারের নম্বর ০১০৪৬৩৯ ও ০৮২৭১৫৯।

একক সাধারণ পদ্ধতিতে (অর্থাৎ প্রত্যেক সিরিজের জন্য একই নম্বর) এ ‘ড্র’ পরিচালিত হয় এবং বর্তমানে প্রচলনযোগ্য ১০০ টাকা মূল্যমানের ৫৮টি সিরিজ যথা -কক, কখ, কগ, কঘ, কঙ, কচ, কছ, কজ, কঝ, কঞ, কট, কঠ, কড, কঢ, কথ, কদ, কন, কপ, কফ, কব, কম, কল, কশ, কষ, কস, কহ, খক, খখ, খগ, খঘ, খঙ, খচ, খছ, খজ, খঝ, খঞ, খট, খঠ, খড, খঢ, খথ, খদ, খন, খপ, খফ, খব, খম, খল, খশ, খষ, খস, খহ, গক, গখ, গগ , গঘ, গঙ এবং গচ -এই ড্রয়ের আওতাভুক্ত।

উপরোক্ত সিরিজগুলোর অন্তর্ভুক্ত ৪৬টি সাধারণ সংখ্যা পুরস্কারের যোগ্য বলে ঘোষিত হয়।

প্রতিটি ১০ হাজার টাকা করে ৪০টি পঞ্চম পুরস্কারের নম্বর হলো- ০০০৬২৪৬, ০১৬৭২২৭, ০৩৪৭৭১২, ০৭৩৬৯৫৬, ০৮৩৮৭৪১, ০০২৪১০৬, ০২০২৪৬৫, ০৪৫২৪৭৫, ০৭৫৭১৩৮, ০৮৪৫২৭১, ০০৪৮৩৫৫, ০২২১৮৩৪, ০৪৭১৩৬৩, ০৭৬৪৯০৬, ০৮৫৪৯৯৬, ০০৪৮৩৯৯, ০২৭০০৫৫, ০৫২০৭৫৩, ০৭৭৯৯৫৭, ০৮৭২২১২, ০০৫০৬৭৭, ০২৯১৪২৯, ০৫৬২৭৩১, ০৭৮৯৯২৯, ০৮৮২৮৩১, ০০৯৯৮৮৬, ০২৯৫৯৯৪, ০৬২৭৩০২, ০৮১৫৭৫৯, ০৯২৬০১৩, ০১৪৩০৩৩, ০৩১৯৩৭৫, ০৬৩৪২০৬, ০৮২৭০৮০, ০৯৫২৬৬০, ০১৫৯৪২৫, ০৩৩০৭৮৫, ০৭২৬২০৯, ০৮৩২৯৬০ এবং ০৯৭৮৬৮৩।

উপরে বর্ণিত সংখ্যার বন্ডগুলো সাধারণভাবে প্রতিটি সিরিজের ক্ষেত্রে পুরস্কারের যোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

প্রসঙ্গত, স্বাধীনতার পর ১৯৭৪ সালে চালু এ বন্ডের নাম ‘বাংলাদেশ প্রাইজবন্ড’। প্রাইজবন্ডকে পুরস্কার বন্ড ও লটারি বন্ডও বলা হয়। আবার সুদের কোনো ব্যাপার নেই বলে একে সুদবিহীন বন্ডও বলা হয়। ভাঙানো ও কেনা—দুটোই করা যায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সব ক্যাশ অফিস, বাণিজ্যিক ব্যাংক ও ডাকঘর থেকে। বছরে চারবার লটারির ড্র হয়, তাতেই নির্ধারণ হয় কারা জিতল পুরস্কার। প্রতিবছরে ৩১ জানুয়ারি, ৩০ এপ্রিল, ৩১ জুলাই ও ৩১ অক্টোবর লটারি ড্র হয়।

প্রাইজবন্ডের ড্র করে থাকে ঢাকার বিভাগীয় কমিশনারকে চেয়ারম্যান করে গঠিত কমিটি। তবে কেনার দুই মাস পার হওয়ার পর প্রাইজবন্ড ড্রয়ের আওতায় আসে। নতুন কেনা প্রাইজবন্ডের পাশাপাশি আগে কিনে রাখা প্রাইজবন্ডও ড্রয়ের আওতায় থাকে। ড্র অনুষ্ঠানের দুই বছর পর্যন্ত পুরস্কারের টাকা দাবি করা যায়। এর মধ্যে কেউ দাবি না করলে পুরস্কারের অর্থ তামাদি হয়ে সরকারি কোষাগারে ফেরত যায়।

প্রাইজবন্ডে প্রতিটি সিরিজের জন্য ৪৬টি পুরস্কার রয়েছে। সব মিলিয়ে ৫৮টি সিরিজের জন্য রয়েছে ২ হাজার ৬৬৮টি পুরস্কার। প্রথম পুরস্কার ১টি ৬ লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার ১টি ৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা, তৃতীয় পুরস্কার ২টি ১ লাখ টাকা করে, চতুর্থ পুরস্কার ২টি ৫০ হাজার টাকা করে এবং পঞ্চম পুরস্কার ৪০টি ১০ হাজার টাকা করে।

 

চিত্রদেশ//এইচ//

আরও

Leave a Reply

Back to top button