প্রধান সংবাদ

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকার যেসব এলাকা লকডাউন হচ্ছে!

স্টাফ রিপোর্টার:
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) লাল চিহ্নিত এলাকা সুনির্দিষ্ট করা হলেই ৪৮ বা ৭২ ঘণ্টার মধ্যেই লকডাউন করা হবে বলে জানিয়েছেন দক্ষিণের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

মঙ্গলবার নগর ভবনের ব্যাংক ফ্লোর সভা কক্ষে করোনা নিয়ন্ত্রণে জোনিং সিস্টেম বাস্তবায়ন বিষয়ক কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় এসব কথা জানান তিনি। সভায় সভাপতিত্ব করেন সিটি মেয়র তাপস।

তিনি বলেন, এখন যে ২৮টি এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে সেটা বৃহত। তৃণমূল থেকে কমিটি কাজ করছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনার পরপরই বাস্তবায়ন শুরু হবে।

মেয়র বলেন, করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকায় সরকারের পদক্ষেপের অংশ হিসেবে আমরা লাল চিহ্নিত এলাকা লকডাউন করবো। তবে বর্তমানে যে ২৮টি এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে তা বৃহত এলাকা। এটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে সুনির্দিষ্ট করে দিলেই ৪৮ বা ৭২ ঘণ্টার মধ্যে লকডাউন করা হবে।

তিনি বলেন, একটি ওয়ার্ড বা এলাকা অনেক বৃহত। জনগণের সুবিধার কথা ভেবে আমরা শুধু আক্রান্ত এলাকাকে বা সংক্রমিত এলাকাটি লকডাউন করবো। সেই সঙ্গে সেখানকার গরিব মানুষের মধ্যে খাবার পৌঁছে দিতে হবে, আক্রান্তের সুযোগ-সুবিধা, স্বাস্থ্যসেবা বাস্তবায়ন করতে হবে। এরপরও আমরা বলতে পারি আগামীকাল বুধবার আমাদের একটি সুনির্দিষ্ট এলাকা চিহ্নিত করে দেওয়া হলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আমরা লকডাউন করবো।

মেয়র বলেন, আমরা যে এলাকা লকডাউন করবো তা ১৪ দিন বা ২১ দিন পর খুলে দেওয়ার পর যেন এলাকাটি সবুজ এলাকায় পরিণত হয়। লকডাউন করার আগে এলাকাটিতে মাইকিং করা হবে। সে এলাকার সামাজিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের নিয়ে বসবো।

ঢাকা দক্ষিণের চিহ্নিত ২৮ এলাকা হলো: যাত্রাবাড়ী, ডেমরা, মুগদা, গেণ্ডারিয়া, ধানমণ্ডি, জিগাতলা, লালবাগ, আজিমপুর, বাসাবো, শান্তিনগর, পল্টন, কলাবাগান, রমনা, সূত্রাপুর, মালিবাগ, কোতোয়ালি, টিকাটুলী, মিটফোর্ড, শাহজাহানপুর, মতিঝিল, ওয়ারী, খিলগাঁও, পরীবাগ, কদমতলী, সিদ্ধেশ্বরী, লক্ষ্মীবাজার, এলিফ্যান্ট রোড, সেগুনবাগিচা।

 

চিত্রদেশ//এস//

আরও

Leave a Reply

Back to top button