প্রধান সংবাদ

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দগ্ধ স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে স্বামীও দগ্ধ

স্টাফ রিপোর্টার:
নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় একটি ভবনের ছাদের উপর দিয়ে যাওয়া এক লাখ ৩৩ হাজার ভোল্ডের বৈদ্যুতিক তারের সঙ্হে স্পৃষ্ট হয়ে স্বামী-স্ত্রী দগ্ধ হয়েছেন। তাদেরকে মুমূর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে ফতুল্লার শাসনগাঁও এলাকার ওহাব সরদারের বিল্ডিংয়ে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধ হওয়া মাহাবুব (২৫) ময়মনসিংহের ফুলপুর থানার গোপপুর এলাকার আবুল কালামের ছেলে ও তার স্ত্রী খাদিজা আক্তার (২২)। তারা ফতুল্লার শাসনগাঁও এলাকার মিজানুর রহমানের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করেন। স্বামী-স্ত্রী বিসিক শিল্পনগরীর গার্মেন্টে চাকরি করেন।

এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে ফতুল্লার বিসিক ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ কাজল মিয়া জানান, খাদিজা ভবনের ছাদে কাপড় শুকাতে যায়। তখন ভবনের উপর দিয়ে যাওয়া এক লাখ ৩৩ হাজার ভোল্ডের বৈদ্যুতিক তারের সঙ্গে স্পৃষ্ট হয়ে তার শরীর জ্বলছে যায়। এসময় খাদিজার জামা কাপড়ে আগুন লেগে নিচে একটি টিনশেড ঘরে আগুন ধরে যায়। পরে খবর পেয়ে দৌঁড়ে ছাদে উঠে খাদিজার স্বামী মাহাবুব। স্ত্রীকে বাঁচানোর জন্য তাকে কোলে নিয়ে নিচে নামার জন্য অন্য একটি ছাদে উঠলে সেই ছাদের উপর যাওয়া এক লাখ ৩৩ হাজার ভোল্ডের বৈদ্যূতিক তারের সঙ্গে স্পৃষ্ট হয়ে মাহাবুবও দগ্ধ হয়।

সংবাদ পেয়ে বিসিকের ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা দগ্ধ স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করায়। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। স্বামীর ৯০ ভাগ এবং স্ত্রীর ৮০ ভাগ শরীর ঝলসে গেছে।

চিত্রদেশ//এস//

আরও

Leave a Reply

Back to top button