বিনোদন

নোবেলের চ্যানেল থেকে জেমসের গান সরালো ইউটিউব কর্তৃপক্ষ

স্টাফ রিপোর্টার:

কাভার গানের শিল্পী হিসেবেই পরিচিতি পেয়েছেন ‘সারেগামাপা’খ্যাত কণ্ঠশিল্পী মাইনুল আহসান নোবেল। সারেগামাপা অনুষ্ঠানে দেশের কিংবদন্তি শিল্পীদের গান গেয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা পান তিনি। পরে কয়েকটি মৌলিক গান গেয়েছেন। কিন্তু এখনও নিজের গান দিয়ে শ্রোতাদের ভালোবাসা পাননি তেমন।

তবে নোবেল তার ইউটিউব চ্যানেলে অন্য খ্যাতিমান শিল্পীদের গান কাভার করে নিয়মিত প্রকাশ করেন। সেই ধারাবাহিকতায় নগর বাউল জেমসের গাওয়া শ্রোতাপ্রিয় গান ‘পাগলা হাওয়া’ কাভার করে নিজের চ্যানেলে প্রকাশ করেছিলেন। অনুমতি ছাড়া এই গান প্রকাশ করায় ইউটিউব চ্যানেলের কাছে অভিযোগ করেন গানটির সুর ও সংগীত পরিচালক শওকাত।

সুরকার শওকাতের অভিযোগের ভিত্তিতে নোবেলের ইউটিউব চ্যানেল থেকে গানটি সরিয়ে দিয়েছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিশ্চিত করেন সুরকার নিজেই।

বিষয়টা নিয়ে শওকাত গণমাধ্যমকে বলেন, ‘নোবেলকে আমি চিনতাম না। শুনেছি সারেগামাপাতে এ নামে কেউ একজন আছে। তবে সম্প্রতি বিতর্কে জড়ায় সে। হঠাৎ তার ইউটিউব চ্যানেলে ঢুকে দেখি আমার ‘পাগলা হাওয়া’ গানটি তার চ্যানেলে। এ সময় তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার চিন্তা করি। তারপর ইউটিউব কর্তৃপক্ষ আমার ডকুমেন্ট ভেরিফাই করে জানিয়েছে, আমার অভিযোগ তারা গ্রহণ করেছে এবং গানটি নোবেলম্যানের ইউটিউব চ্যানেল থেকে মুছে দিয়েছে।’

শওকাত আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের যারা মূলধারার শিল্পী তারা অনেকে জানেনই না যে ইউটিউব থেকে আয় করা যায়! এটা জেমস ভাইয়ের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। আবার নোবেলম্যান মাসে ২-৪ লাখ টাকা ইউটিউব থেকে আয় করছে। আর এটা শুধু আমাদের গান বিক্রি করে। এটা অনৈতিক।’

নোবেলের উদ্দেশ্যে শওকাত ইসলাম বলেন, ‘আমি সব শিল্পীকে সম্মান করি। নোবেলও একজন শিল্পী। আমি ওকে বলবো বাবা তুমি নিজের গান করো। এভাবে অন্যের গান বিক্রি করে অর্থ উপার্জন বন্ধ করো। যারা মিউজিক নিয়ে কাজ করেন তাদের কাছে যাও। এতে করে ধীরে ধীরে নিজেকে তৈরি করা যায়।’

সংগীত ক্যারিয়ারে প্রায় আটশ গান সুর করেছেন শওকাত ইসলাম। আইয়ুব বাচ্চুর গাওয়া ‘এক আকাশের তারা’, ‘নদীর বুকে চাঁদসহ প্রায় ১৩০টি গান সুর করেছেন শওকাত। জেমসের গাওয়া ‘কুসুম কুসুম প্রেম’, ‘পাগলা হাওয়া’সহ ৬০টি গানের সুরকার তিনি। এছাড়া অনেক জনপ্রিয় গানের সুরকার তিনি।

চিত্রদেশ //এল//

আরও

Leave a Reply

Back to top button