প্রধান সংবাদরাজনীতি

নেতাকর্মীদের পদভারে মুখরিত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

স্টাফ রিপোর্টার:
আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনকে সামনে রেখে সম্মেলনস্থলে আসছেন দলীয় নেতাকর্মীরা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নেতাকর্মীদের আনাগোনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রত্যাশার চাইতে নেতাকর্মীদের সংখ্যা বেশি থাকবে বলে ধারণা করছেন নেতারা।

শুক্রবার সকাল থেকেই সম্মেলনস্থলের চারপাশে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের ভিড় দেখা গেছে।

সকাল থেকে সম্মেলনস্থলে উপস্থিত হতে দেখা গেছে সম্মেলনের কাউন্সিলর ও ডেলিগেটসদের। সকাল আটটার দিকে তারা ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চারপাশে উপস্থিত হন। এরপর দলে দলে সম্মেলনস্থলে প্রবেশ করেন।

ইতোমধ্যে অনেকেই সম্মেলনস্থলে প্রবেশ করেছেন। আবার অনেকে বাইরে অপেক্ষা করছেন। একে অন্যের সঙ্গে কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে দিচ্ছেন।

শাহবাগ জাদুঘর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-ছাত্র কেন্দ্র (টিএসসি), বাংলা একাডেমিসহ আশপাশের এলাকায় দেখা গেছে নেতাকর্মীদের আনাগোনা।

সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, পাঁচটি গেট দিয়ে নেতাকর্মীরা সারিবদ্ধ হয়ে সম্মেলনস্থলে ঢুকছেন। দায়িত্বরত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর লোকজন সবাইকে তল্লাশি করে ভেতরে ঢোকাচ্ছেন। ভেতরে প্রবেশের সময় কাউকে ব্যাগ নিয়ে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। প্রতিটি গেটের বাইরে নেয়া হয়েছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছেন আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবকরা। নেতাকর্মীদের পদভারে পুরো সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকা মুখরিত হয়ে উঠেছে।

দলীয় তথ্যমতে, সাত হাজার কাউন্সিলর ও ৫০ হাজার ডেলিগেটস এই সম্মেলনে উপস্থিত হওয়ার কথা রয়েছে।

দলটির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় এই সম্মেলনকে ঘিরে তাদের আশা-প্রত্যাশা অনেক৷ কারণ দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃত্ব তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বলে তারা জানান। শীর্ঘ পর্যায়ের নেতৃত্ব বেরিয়ে আসবে এই সম্মেলনের মধ্য দিয়েই। তাই প্রিয় দলের নেতৃত্বের ঘোষণার অপেক্ষায় রয়েছেন তারা। সেই সঙ্গে দলীয়প্রধান যাদের নেতৃত্বে নিয়ে আসবেন, নেতাকর্মীরা তাদেরকেই মেনে নেবেন বলে জানান।

১৯৪৯ সালের ২৩ জুন রোজ গার্ডেনে জন্ম আওয়ামী লীগের। এখন ঐতিহ্যবাহী এই দলটির বয়স ৬৭ বছর। এ পর্যন্ত দলটির ২০টি জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এর আগে দুই দিনব্যাপী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলন ২০১৬ সালের ২২ ও ২৩ অক্টোবর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে শেখ হাসিনা সভাপতি ও ওবায়দুল কাদের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

 

চিত্রদেশ //এস//

আরও

Leave a Reply

Back to top button