প্রধান সংবাদসারাদেশ

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন লকডাউন ঘোষণা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এলাকা, সদর ও বন্দর উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে ৬ এপ্রিল থেকে কেউ অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা-বাড়ি থেকে বের হতে পারবে না। কেউ অহেতুক বাসা থেকে বের হলে তার উপর প্রশাসনের কঠোর অ্যাকশন চলবে।

রোববার রাতে জেলা প্রশাসক জসিমউদ্দিনের সভাপতিত্বে জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এতে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম, সিভিল সার্জন মুহাম্মদ ইমতিয়াজ, সেনাবাহিনী ও র‌্যাবের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, এখন থেকে আমরা জিরো টলারেন্স। কোনো এলাকা থেকে কেউ বের হবে না। নারায়ণগঞ্জে ইনপুট আউটপুট বন্ধ থাকবে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বের ও ঢুকতে পারবে না। এখন নারায়ণগঞ্জ বেশ গুরুত্বপূর্ণ এ কারণে আমরা কঠোর অবস্থানে রয়েছি। সোমবার থেকে পিপিই প্রস্তুত করা ও বিদেশি অর্ডার ছাড়া বাকি সব গার্মেন্ট বন্ধ থাকবে। পরিস্থিতি ভালো না হওয়া পর্যন্ত আমরা কঠোর থাকবো।

তিনি আরো জানান, ইতোমধ্যে আমাদের মাইকিং চলছে। অলিগলি বাঁশ দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হবে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সেই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ শহরে রাত থেকেই মাইকিং শুরু করেছে প্রশাসন। এতে বলা হচ্ছে, আপনারা কেউ রাস্তায় বের হবেন না। বের হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জে নতুন করে ৬ জন করোনা রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। এরই মধ্যে এ জেলায় মৃত্যুবরণ করেছেন ২ জন।

এদিকে রোববার পর্যন্ত সারা দেশে ৮৮ জন ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ঢাকার ২৯ টি স্থানেই আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ জন । এছাড়া বাকি লোকজন দেশের ১১ জেলার বলে তথ্য প্রকাশ করেছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।

রাজধানীর ৫২ জনসহ ঢাকা জেলায় ৫৪ জন আক্রান্তের তথ্য দিয়েছে আইইডিসিআর। তবে সুনির্দিষ্টভাবে আক্রান্ত ৫২ জন কোথায় থাকতেন সেই এলাকার নাম বললেও ২ জন আক্রান্তের এলাকার নাম দেওয়া হয়নি।

রাজধানীর ২৯টি স্থানে ৫২ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন। স্থানগুলো হলো: বাসাবোয়: ৯ জন, মিরপুরের টোলারবাগ: ৬ জন, পুরান ঢাকার শোয়ারিঘাট: ৩ জন, বসুন্ধরা: ২ জন, ধানমন্ডি: ২ জন, যাত্রাবাড়ী: ২ জন, মিরপুর-১০: ২ জন, মোহাম্মদপুর: ২ জন, পুরোনো পল্টন: ২ জন, শাহ আলী বাগ: ২ জন, উত্তরা: ২ জন।

রাজধানীর বাকি ১৮টি স্থানে একজন করে করোনা রোগী পাওয়া গেছে। এ স্থানগুলো হলো বুয়েট এলাকা, সেন্ট্রাল রোড, ইস্কাটন, গুলশান, গ্রিনরোড, হাজারীবাগ, জিগাতলা, মিরপুর কাজীপাড়া, মিরপুর-১১, লালবাগ, মগবাজার, মহাখালী, নিকুঞ্জ, রামপুরা, শাহবাগ, উর্দু রোড ও ওয়ারী।

করোনার হানা যে ১১ জেলায়: ঢাকা: ৫৪ জন, মাদারীপুর: ১১ জন, নারায়ণগঞ্জ: ১১ জন, গাইবান্ধা : ৫ জন। বাকি ৭ জেলায় একজন করে ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ জেলাগুলো হলো গাজীপুর, চুয়াডাঙ্গা, কুমিল্লা, কক্সবাজার, শরীয়তপুর, রংপুর ও চট্টগ্রাম।

 

চিত্রদেশ//এস//

আরও

Leave a Reply

Back to top button