পজিটিভ সংবাদপ্রধান সংবাদ

টাইগারদের অভিনন্দন জানালেন প্রধানমন্ত্রী

স্পোর্টস ডেস্ক:
এক ম্যাচ হাতে রেখে স্বাগতিক উইন্ডিজকে ৯ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ জয় করায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসাথে ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়, কোচ ও ম্যানেজারসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি।
বুধবার (১৩ জুলাই) রাতে গণমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সচিব সাখাওয়াত মুন।
টেস্ট আর টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাজে ভাবে পরাজয় বরণ করার পর ওয়ানডে ফরম্যাটে দুর্দান্ত ভাবে ফিরে এসে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে নিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম।
তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে উইন্ডিজকে ৬ উইকেটে হারানোর পর দ্বিতীয় ম্যাচে ৯ উইকেটে স্বাগতিকদের হারিয়েছে সফরকারীরা।
বুধবার গায়ানার প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেই বাংলাদেশের স্পিনে বিভ্রান্ত হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। নাসুম আহমেদ, মেহেদি হাসান মিরাজ ও মোসাদ্দেক হোসেনের স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে সময়ের ব্যবধানে উইকেট হারায় ক্যারিবীয়রা।
এ দিন ঠিক যেন আগের ম্যাচে উইন্ডিজের ইনিংসের পুনরাবৃত্তি হলো। টস জিতে ফিল্ডিংয়ে যেয়ে বোলারদের অসাধারণ নৈপুণ্যে স্বাগতিকদের চেপে ধরে বাংলাদেশ। এরপর উইন্ডিজ একশর কোটা ছুঁয়েছে বটে, কিন্তু এগোতে পারেনি বেশি দূর। ৩৩ ওভারে ১০৮ রানেই উইন্ডিজকে গুড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। টাইগারদের হয়ে সর্বোচ্চ ৪টি উইকেট নেন মেহেদি হাসান মিরাজ। নাসুম নেন ৩টি উইকেট।
জবাব দিতে নেমে টাইগারদের ওপেনিং জুটি মাত্র ১২ ওভারেই ৪৮ রান তুলে ফেলে। নাজমুল শান্ত টানা দ্বিতীয় ম্যাচে ভালো সূচনা পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি। ৩৬ বলে ২ চারে ২০ রান করে গুদাকেশ মোতির শিকারে পরিণত হন এই বাঁহাতি।
শান্তর বিদায়ের পর ক্রিজে এসেই দ্রুত রান তুলতে থাকেন লিটন। তার আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে দ্রুতই জয়ের লক্ষ্যে এগিয়ে যায় টাইগাররা। মাত্র ২০.৪ ওভারেই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে ফেলে বাংলাদেশ।
এদিকে চার মেরে একইসঙ্গে দলের জয় ও ব্যক্তিগত অর্ধশতক নিশ্চিত করেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। এটি ওয়ানডেতে এই ড্যাশিং ওপেনারের ৫৩তম অর্ধশতক। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫০ রান তারই। তার ইনিংসে ছিল ৭টি চারের মার। আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ২৭ বলে ৬ চারে লিটন করেন ৩২ রান।
এ নিয়ে ওয়ানডে ফরম্যাটে শেষ পাঁচ সিরিজের সবকয়টি জিতলো বাংলাদেশ। এর আগে ২০১৫ সালে টানা পাঁচ সিরিজ জেতার কীর্তি দেখিয়েছিলো টাইগাররা। ২০১৪-১৫ মৌসুমে জিতেছিল টানা ছয় সিরিজ।
২০১৮ সালের ডিসেম্বরের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে আর কোনো ম্যাচ হারেনি বাংলাদেশ। দশ নাম্বার জয়ে চলতি ওয়ানডে সিরিজে এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিজেদের করে নিলো তামিমরা। অধিনায়কের চাওয়ামতোই সিরিজের শেষ ম্যাচ রিল্যাক্স হয়ে খেলবে টিম টাইগার।
/এলএইচ//
Tags

আরও

Leave a Reply

Back to top button