অপরাধ ও আইনপ্রধান সংবাদ

‘ছো’ মারা দলের ১৪ সদস্য গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার:
রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বাসস্ট্যান্ডে অপেক্ষারত মানুষের কিংবা বাসের জানালা দিয়ে ‘ছো’ মেরে মোবাইল ছিনিয়ে নেয়া চক্রের ১৪ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি।

বৃহস্পতিবার সিআইডি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানান সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মনির হোসেন, সোহেল মিয়া, হযরত আলী, সবুজ, জাহাঙ্গীর হোসেন, মফিজুল্লাহ, ইমন মিয়া, আনোয়ার হোসেন, ওয়াসিম হোসেন, রুবেল হোসেন, তোফাজ্জল হোসেন, আমিন, আতিকুল ইসলাম ও তরিকুল ইসলাম বাবু।

গ্রেপ্তারের পর তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে ছিনতাই হওয়া বিভিন্ন ব্রান্ডের ১৮৩টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এর মধ্যে ১৫ লাখ টাকা মূল্যের স্যামসাং, আইফোন, নকিয়া, অপ্পো, হুওয়ায়ে, নকিয়া, মোটরলা ব্রান্ডের একাধিক ফোন রয়েছে। গ্রেপ্তারদের নামে শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক জানান, রাজধানীর গুলিস্তান, ফুলবাড়িয়া, গোলাপশাহ মাজার ও মুগদা বাস স্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন এলাকার ব্যস্ততম মোড়ে চক্রটি ছো মেরে মোবাইল ছিনতাই করত। ছিনতাইয়ের পর এই চক্রটি তাদের নির্দিষ্ট মোবাইল দোকানে গিয়ে আই.এম.ই.আই নম্বর পরিবর্তন করত। এরপর সেসব অল্প দামে বিভিন্ন অভিজাত মার্কেটের কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করে দিত।

মোবাইল ফোন কেনার সময়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে শেখ ওমর ফারুক বলেন, যে ব্রান্ডের ফোন কিনতে চান সেই ব্রান্ডের অনুমোদিত নির্দিষ্ট ডিলার পয়েন্ট বা সাব-ডিলার পয়েন্ট থেকে কিনতে হবে। এই চক্রটি প্রায় সব ধরনের মোবাইলেই আই.এম.ই.আই নম্বর পরিবর্তন করত। তাই পুরাতন মোবাইল কেনা থেকে বিরত থাকতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার কানিজ ফাতেমা ও এএসপি (মিডিয়া) জিসানুল হক জিসান।

চিত্রদেশ//এফ//

Tags

আরও

Leave a Reply

Back to top button