স্বাস্থ্য কথা

করোনা : সুস্থ হওয়ার পরে যেসব নিয়ম মানতে হবে

স্বাস্থ্য ডেস্ক:

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ভয় নিয়েই এখন আমাদের নিত্যদিনের দিনযাপন। অনেকে প্রথমবার আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হওয়ার পরে আবার দ্বিতীয়বার আক্রান্ত হচ্ছেন। তবে এই সংখ্যাটা খুব বেশি নয়। আবার করোনা থেকে সেরে ওঠার পরেও নানা শারীরিক সমস্যা লেগে থাকতে পারে। তাই করোনা সংক্রমণ থেকে সেরে ওঠার পরেও মেনে চলতে হবে নির্দিষ্ট কিছু স্বাস্থ্যবিধি।

বিশেষজ্ঞদের বলছেন, করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পরও কিছু সমস্যা থেকে যেতে পারে। কিছু সমস্যা দীর্ঘমেয়াদী হতে পারে, যেমন – ক্লান্তি, মাথাব্যথা, মানসিক সমস্যা, কিডনি, ফুসফুস এবং হার্টের অসুস্থতা ইত্যাদি। বোল্ডস্কাই জানাচ্ছে করোনা থেকে সেরে উঠলেও কোন নিয়মগুলো মেনে চলতে হবে-

রুটিন
রুটিনবদ্ধ জীবন বেছে নিন। যখন তখন বাইরে বের হওয়া, বাড়ির সদস্যদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে মেশা, একটানা কাজ করার বিষয়গুলো কমিয়ে আনুন। শারীরিক ও মানসিকভাবে ফিট হয়ে উঠতে নিজেকে সময় দিন। কখন কোন কাজ করলে তা আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে, সেভাবে একটি রুটিন করে ফেলুন। সেই রুটিন মেনে চললেই দ্রুত পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠবেন।

শারীরিক লক্ষণগুলো খেয়াল করুন
আপনার শারীরিক সুবিধা-অসুবিধা আপনার থেকে ভালো কেউ বুঝতে পারবে না। তাই নিজের শারীরিক অবস্থার দিকে নজর দিন।

অল্প মাথা ঘোরা, শ্বাসকষ্ট, অতিরিক্ত দুর্বল ভাব, পুনরায় স্বাদ গন্ধ চলে যাওয়া বা অন্য কোনো লক্ষণ দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

নিয়ম মেনে ওষুধ সেবন
করোনামুক্ত মানেই কিন্তু আপনি পুরোপুরি সুস্থ নয়। তাই এর পরেও চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে নিয়মমাফিক ওষুধ খেতে হবে। আপনি যদি আগে থেকেই ক্রণিক কোনো অসুখে ভুগে থাকেন তবে চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে সেই ওষুধও খেতে হবে। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে থাকলে তার চিকিৎসাও চালিয়ে যেতে হবে।

মানসিক দুর্বলতা দূর করুন
অসুখে আক্রান্ত হওয়ার পর মানসিকভাবে ভেঙে পড়লে অসুখ আরও দ্রুত ঘায়েল করে। অপরদিকে মানসিকভাবে শক্ত থাকলে তা তাদের অসুখ থেকে সেরে ওঠার ক্ষেত্রে সহায়ক হয়। তাই নিজেকে মানসিকভাবে সুস্থ রাখার চেষ্টা করুন। মন ও মস্তিষ্ক যাতে ভালো থাকে, সেসব কাজ করুন।

সুষম খাবার ও পর্যাপ্ত পানি
করোনা থেকে মুক্ত হতে পারলেও তা শারীরিক ও মানসিকভাবে অনেকটা দুর্বল করে দিয়ে যায়। তাই নিজেকে আগের মতো শক্তিশালী করে তুলতে নজর দিতে হবে খাবারের দিকে। ঘরে তৈরি ভিটামিনযুক্ত সুষম খাবার খেতে হবে। এর পাশাপাশি পান করতে হবে পর্যাপ্ত পানি। কেমন খাবার আপনার উপযোগী হবে তা চিকিৎসকের কাছ থেকে জেনে নিন।

একাকীত্ব নয়
নিজেকে কিছুতেই একা ভাববেন না। করোনা জয় করে এলেও অনেকে নিজেকে একা ভাবতে শুরু করেন। এটি প্রভাব ফেলে শারীরিক ও মানসিক অবস্থার ওপর। শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে গল্প করুন। অনলাইনে বা ফোনে প্রিয়জনের সঙ্গেও গল্প করতে পারেন। পছন্দের বই পড়ুন কিংবা সিনেমা দেখতে পারেন। এতে করে নিজেকে আর একা মনে হবে না।

শরীরচর্চা
শরীরচর্চা যে শুধু শরীর ভালো রাখে, তা কিন্তু নয়। বরং এটি মন ভালো রাখতেও সাহায্য করে। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী প্রতিদিন অল্প করে ব্যায়াম করা শুরু করুন। এতে করে নিজেকে অনেকটাই সতেজ ও চাপমুক্ত মনে হবে।

চিত্রদেশ//এল//

আরও

Leave a Reply

Back to top button