আন্তর্জাতিকপ্রধান সংবাদ

ইতালিতে মৃত্যু ছাড়িয়েছে ৫ হাজার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

করোনাভাইরাসে ইতালিতে ২৪ ঘণ্টায় রোববার আরও ৬৫১ জন মারা গেছেন। এনিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ হাজার ৪৭৬ জনে দাঁড়িয়েছে। যা শনিবার পর্যন্ত ছিল ৪ হাজার ৮২৫ জন।

ইতালি সরকার করোনা মোকাবেলায় সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। ফলে জরুরি অবস্থা অব্যাহত রয়েছে। চলাফেরাও সীমিত করা হয়েছে। তবুও যেন মৃত্যু থামছে না, হুহু করে বেড়েই চলেছে। করোনার ভয়ানক আঘাতে দিনদিন দেশটি মৃত্যু উপত্যকায় পরিণত হয়েছে।

একদিনে নতুন করে আক্রান্ত ৫ হাজার ৫৬০ জন। এর আগে ৬ হাজার ৫৫৭ জন ছিলেন। যার ফলে দিনের পর দিন জনগণের মাঝে আতংক ও উৎকন্ঠা

দেশটির প্রধানমন্ত্রী জুসেপ্পে কোন্তি করোনা সংকট নিরসনে বিভিন্ন পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছেন। প্রতিদিন জনগণকে সচেতন ও মনোবল বৃদ্ধি করতে ভাষণ দিচ্ছেন। দেশের জনগণের আর্থিক সমস্যা মেটাতে ভিন্ন ভিন্ন খাতে বরাদ্দ দিচ্ছেন। এ পর্যন্ত প্রায় ৩৫০ বিলিয়ন ইউরো বরাদ্দ দিয়েছেন। ইউরোপে এখন পর্যন্ত রেকর্ড সংখ্যক মৃত্যুর মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি ইতালির উত্তরাঞ্চলীয় শহর লম্বার্ডিয়ায়। করোনাভাইরাসে কমপক্ষে ১৮ জন চিকিৎসক মারা গেছেন দেশটিতে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের উৎস দেশে চীনে ক্রমান্বয়ে পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলেও ইতালি প্রথম মৃত্যুর পর এক মাস না গড়াতেই মৃতের সংখ্যায় চীনকে ছাড়িয়ে যায়।

শনিবার একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ডের পর ইতালির সবচেয়ে আক্রান্ত এলাকা লমবার্দিতে নতুন করে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়।

ওই এলাকায় বাড়ির বাইরে সব ধরনের খেলাধুলা ও ব্যয়াম নিষিদ্ধ করা হয়েছে, পাশাপাশি ভেন্ডিং মেশিনের ব্যবহারও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

‘জরুরি’ সাপ্লাই চেইন ছাড়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাসপাতাল, সড়ক ও রেলপথ বাদে সব ধরনের নির্মাণ কাজও বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। খোলা আকাশের নিচে বসা সাপ্তাহিক মার্কেটগুলোও বন্ধ রাখা হয়েছে।

ইতালিতে মৃত পাঁচ হাজারের মধ্যে লমবার্দিতে মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ৯৫ জন।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, রোববার নাগাদ বিশ্বের ১৮৬টি দেশ ও অঞ্চলের প্রায় ৩ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে নভেল করোনাভাইরাসে, মারা গেছে প্রায় ১৩ হাজার জন।

 

চিত্রদেশ//এল//

আরও

Leave a Reply

Back to top button